ইংল্যান্ড আগে ব্যাট করে বাটলারের ৩৯ বলে ৫৯ রানের ইনিংসে ভর করে তোলে ২০০ রান করে। বাটলার একদিক থেকে ধরে খেলেন। অন্য প্রান্ত থেকে ঝড় তোলেন বাকি ইংলিশ ব্যাটসম্যানরা। চারে নেমে মঈন আলী ১৬ বল খেলে ৩৬ রান করেছেন। আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি করা লিয়াম লিভিংস্টোনের ব্যাট থেকে ২৩ বলে এসেছে ৩৮ রান। এরপর লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানদের ছোট ছোট ইনিংসে ইংল্যান্ডের রান ২০০ স্পর্শ করে।

বাটলার ও রশিদের উদযাপন

বাটলার ও রশিদের উদযাপন
 এএফপি

প্রথম ম্যাচের মতো আজও ভালো বল করেছেন শাহিন শাহ আফ্রিদি ও শাদাব খান। ৩.৫ ওভারে ২৮ রান দিয়ে ১ উইকেট নিয়েছেন শাহিন। ৩ ওভারে ৩৩ রানে ১ উইকেট নিয়েছেন লেগ স্পিনার শাদাব। ৩ উইকেট নিলেও অনেক রান দিয়েছেন ফাস্ট বোলার মোহাম্মদ হাসনাইন (৪ ওভারে ৫১ রান দিয়ে ৩ উইকেট)।

 

ইংল্যান্ডের হয়ে আরেক পাকিস্তানি বোলার কাঁপিয়েছেন তাঁরই স্বদেশিদের। কদিন আগে শেষ হওয়া ওয়ানডে সিরিজে দুর্দান্ত বোলিং করা সাকিব মাহমুদ আজ ৪ ওভারে ৩৩ রান দিয়ে ৩ উইকেট শিকার করেন, যার একটি আবার পাকিস্তানের এক নম্বর ব্যাটসম্যান বাবর আজম। এর আগে ওয়ানডে সিরিজেও সাকিবের বলেই দুবার আউট হন বাবর। ১৬ বলে ২২ রান করে ইনিংসের দারুণ সূচনা পেলেও ডেভিড মালানকে ম্যাচ দেন পাকিস্তান অধিনায়ক। পুরো ম্যাচের রং পাল্টে যায় তখনই।

এরপর রানের খোঁজে থাকা পাকিস্তানি ব্যাটসম্যানদেরও ভুলের সুবিধা নিয়েছেন ইংলিশ বোলাররা। আদিল রশিদ, মঈন আলী, ম্যাট পার্কিংসন—তিন স্পিনার মিলে পাকিস্তানের ৫ উইকেট নিয়েছেন। দারুণ বল করেছেন টম কারেন, প্রথম ম্যাচে অনেক রান দিলেও আজ ৪ ওভারে মাত্র ২২ রানে নিয়েছেন ১ উইকেট। ইংলিশ বোলিংয়ের চাপে পাকিস্তান নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়েছে। ৯ উইকেটে শেষ পর্যন্ত ১৫৫ রানে থামে পাকিস্তান ইনিংস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *