শিক্ষার্থীকে শিক্ষা বস্থার সঙ্গে সম্পৃক্ত রাখতে ২০২০ শিক্ষাবর্ষের মতো ২০২১ শিক্ষাবর্ষের অ্যাসাইনমেন্ট বা নির্ধারিত কাজ নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) । মাধ্যমিক পর্যায়ের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের জন্য নির্ধারণ করা দশম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট বা নির্ধারিত কাজ প্রেরণ করা হলো। এ অবস্থায় ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণির দশম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট বা নির্ধারিত কাজ সব শিক্ষার্থীদের প্রদান ও গ্রহণের ক্ষেত্রে সরকার কর্তৃক ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি–সংক্রান্ত বিধিনিষেধ যথাযথভাবে অনুসরণপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর বলেছেন, সরকারের কঠোর বিধিনিষেধে শিক্ষার্থীদের সুবিধাজনক সময়ে অ্যাসাইনমেন্ট গ্রহণ ও জমা দেওয়ার সুযোগ দিয়েছে ।

শিক্ষা অধিদপ্তর বলছে, করোনা অতিমারির কারণে যেসব কোনো এলাকায় বিধিনিষেধ বা লকডাউন চললে ওই সব এলাকার আঞ্চলিক পরিচালক, উপপরিচালক, জেলা-উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা, স্থানীয় প্রশাসন ও প্রতিষ্ঠান প্রধানদের সঙ্গে আলোচনা করে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ক্ষেত্রবিশেষে বিতরণ করা অ্যাসাইনমেন্ট জমার তারিখ পুনর্নির্ধারণ করতে পারবেন। মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) বলেছেন, যেসব শিক্ষার্থী যথাসময়ে অ্যাসাইনমেন্ট গ্রহণ করতে পারবে না, তাদের পরে সুবিধাজনক সময়ে প্রতিষ্ঠানপ্রধানেরা অ্যাসাইনমেন্ট গ্রহণ ও জমার সুযোগ দেবেন। স্বাস্থ্যবিধি কোনোভাবেই অমান্য করা যাবে না। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তা ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে বলেছে শিক্ষা অধিদপ্তর।

অ্যাসাইনমেন্ট মূল্যায়ন নির্দেশনায় শিক্ষা অধিদপ্তর বলছে, করোনার কারণে ২০২০ সালের ১৮ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে স্বাভাবিক শ্রেণি কার্যক্রম বন্ধ থাকায় ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীরা নির্ধারিত পাঠ্যসূচি অনুযায়ী শিক্ষা কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করতে পারেনি এবং তাদের মূল্যায়ন করা যায়নি। শিক্ষা মন্ত্রণালয় এর বিকল্প হিসেবে বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহণ করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *