আলোচিত এই উপন্যাসের একটি চরিত্রে অভিনয় করতে পেরে ভীষণ খুশি মিতু, ‘“জয় বাংলা” আমার আগেই পড়া ছিল। ।’ তিনি বলেন তিনি নাকি কখনও ভাবেননি যে এই রকম চরিত্রে অভিনয় করবেন তিনি। মিতু জানান, এই সিমেনার কাজ পাওয়ায় তার পরিবার ও অনেক খুশি হয়েছেন। বলেন, ‘দুজন গুণী মানুষের ছবিতে কাজের সুযোগ পাওয়াতে আমার মা সবচেয়ে বেশি খুশি হয়েছেন। তার মা বলেন এই সিনেমায় অভিনয় করে ইতিহাসের পাতায় একটি অংশ হয়ে থাকতে পারবে।

১৯৬৯ সালের গণ-অভ্যুত্থান থেকে শুরু করে মুক্তিযুদ্ধের বিজয় পর্যন্ত এই ছবির গল্প। ছবিতে জাহারা মিতুর বিপরীতে অভিনয় করবেন বাপ্পী চৌধুরী। গত বৃহস্পতিবার চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন বাপ্পী। ছবিতে দুজনই ছাত্র হিসাবে অভিনয় করবে।
ছবিটিকে তাঁর জন্য নতুন চ্যালেঞ্জ মনে করেন কাজী হায়াৎ। বলেন, ‘আমি সাধারণত বাণিজ্যিক ছবি করি। “জয় বাংলা” বাণিজ্যিক ঘরানার নয়। এটি নাকি কাজী হায়াতের জন্য নতুন অভিজ্ঞতা হবে।

কবে শুটিং শুরু করবেন জানতে চাইলে পরিচালক বলেন, ‘ঈদের পরপরই যে লকডাউন আসছে, তা উঠে গেল শুটিং শুরু করব।’ পুবাইল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনের লোকেশনে পর্যায়ক্রমে শুটিং হবে।
‘জয় বাংলা’ বাংলাদেশ সরকারের অনুদানের ছবি। এই সিনেমার মধ্য দিয়ে ৫১ তম সিনেমার কাজ শুরু করবেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *